খুব গুরুত্বপূর্ণ ভারতের জাতীয় কিছু বিষয়

*ভারতের জাতীয় প্রতীক অশোক চক্র / অশোক স্তম্ভ।
*ভারতের জাতীয় সংগীত বন্দেমাতরম।
*ভারতের জাতীয় স্তোত্র জনগণমন-অধিনায়ক।
*ভারতের জাতীয় ফুল পদ্ম।
*ভারতের জাতীয় ফল আম।
*ভারতের জাতীয় পশু বাঘ (রয়‍্যাল বেঙ্গল টাইগার)
*ভারতের জাতীয় পাখি ময়ূর।
*ভারতের জাতীয় ধ্বনি জয়হিন্দ।
*ভারতের জাতীয় বাণী সত্যমেব জয়তে।
*ভারতের জাতীয় লজ্জা অস্পৃশ্যতা।
*ভারতের জাতির জনক বলা হয় মহাত্মা গান্ধীকে।
*ভারতের জাতীয় খেলা হাডুডু এবং হকি।
*ভারতের জাতীয় দল মোহনবাগান।
*ভারতের জাতীয় ভাষা হিন্দি।
*ভারতের জাতীয় জলজ পশু ইরাবতী ডলফিন।
*ভারতের জাতীয় দিবস গুলি হল-
26 শে জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবস।
15 ই আগস্ট স্বাধীনতা দিবস।
2 রা অক্টোবর গান্ধী জয়ন্তী-মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিন।
*ভারতের জাতীয় ঐতিহ্যবাহী পশু হাতি।
*ভারতের জাতীয় নীতি বাক্য সত্যমেব জয়তে।

জানার বিষয়:
জাতীয় সংগীত

*ভারতের জাতীয় সংগীতের রচয়িতা বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়।
*এই গানটি প্রথম আনন্দমঠ’ উপন্যাসে প্রকাশিত হয় 1884 সালে।
*1896 খ্রিস্টাব্দে কংগ্রেসের জাতীয় অধিবেশনে এই গানটি প্রথম গাওয়া হয়।
*এই গানটিকে ইংরেজিতে অনুবাদ করেছিলেন শ্রী অরবিন্দ ঘোষ।

জাতীয় স্তোত্র

*ভারতের জাতীয় স্তোত্র রচনা করেছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
*এই গানটিকে জাতীয় স্তোত্র হিসেবে গ্রহণ করা হয় 24 জানুয়ারির 1950 সালে।
*এই গানটি রবীন্দ্রনাথ সম্পাদিত তত্ত্ববোধিনী পত্রিকায় 1912 সালে প্রথম প্রকাশিত হয়।
*গানটি প্রথম প্রকাশের সময় নাম ছিল ভারত বিধাতা।
*এই গানটি কে ইংরেজিতে অনুবাদ করেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং ইংরেজিতে এই কবিতাটির নাম Morning Song of India ।
*এই গানটির পাঁচটি স্তবক এবং সৈন্যবাহিনী একটি স্তবক গাইতে পারে।
*এই গানটিকে প্রথম গাওয়া হয় 27 শে ডিসেম্বর 1911 সালে কংগ্রেসের কলকাতা অধিবেশনে।
*ভারতের সংবিধান সভা এই গানটিকেই জাতীয় স্তোত্র রূপে গ্রহণ করে।

বিঃদ্রঃ ভারতের জাতীয় সঙ্গীত বা স্তোত্র জনগণমন-অধিনায়ক।
ভারতের জাতীয় সংগীত বন্দেমাতরম।

সঙ্গীত এবং সংগীত বানানের পার্থক্যটি লক্ষ্য করে উত্তর দিবে।

লিঙ্কটি সকলের সাথে শেয়ার করুন এবং সকলকে জানতে সাহায্য করুন

Don’t Copy share the link with Your Friends

Download our Android Application

Like our Facebook Page

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*